শক্ত ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে এই থিয়েটার
Desh|December 17, 2021
গিরিশচন্দ্র ঘােষ এবং শিশিরকুমার ভাদুড়ী: স্বতন্ত্রভাবে বাংলা নাট্যজগতের ভিত্তি স্থাপন করেছিলেন তাঁদের নিজ নিজ সময়ে
সু ব্ৰ ত ঘােষ

| এই সময়ে বাংলা থিয়েটার কি সঙ্কটে? এমন একটা প্রশ্ন নাট্যমহলে ইদানীং শােনা যাচ্ছে, তবে এমন সরাসরি ভাবে নয় অবশ্যই। থিয়েটারের অস্তিত্ব নিয়ে এক ধরনের শঙ্কার আভাস পাওয়া যায় নাট্যজগতের মানুষজনের সঙ্গে কথা বললে। সঙ্কটটি যে আছে, তা স্বীকার করে নেওয়া ভাল। পাঠক নিশ্চয়ই আঁচ করতে পারছেন যে, অতিমারিজনিত বর্তমান সময়টিই এই সঙ্কটের কারণ। হ্যাঁ, এই অস্বাভাবিক সময়ের দাম দিতে হচ্ছে থিয়েটারকে। আমাদের দেশে থিয়েটারের জন্মের পর থেকে তার পথ চলা কোনও দিনই মসৃণ ছিল না। এবং সেই সব বাধাবিঘ্নকে পুঁজি করেই সে নিজেকে বদলে নিয়ে এগিয়ে চলেছে বার বার। তবে এমন একটি অদ্ভুত সঙ্কটক্ষণ হয়তাে বা আসেনি এর আগে। এক বিচিত্র অবস্থার মধ্য দিয়ে তাকে যেতে হচ্ছে। তার অস্তিত্ব নিয়েই প্রশ্ন উঠছে এই সময়ে, যা অবশ্যই একটি শিল্পের পক্ষে সুখকর নয়। এই শিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট হয়ে আছেন হাজার হাজার মানুষ এবং তাঁদের প্রত্যেকের মুখের দিকে চেয়ে আছেন তাঁদের নিজ নিজ পরিবারের সদস্যরা। সুতরাং একটি শিল্পের অস্তিত্ব সঙ্কট হলে সমাজের এক বিরাট অংশের জীবনযাপন বিঘ্নিত হতে বাধ্য। তবে এক জন পঞ্চাশ বছরের ওপর মনােযােগী থিয়েটার দর্শক এবং গত চল্লিশ বছর ধরে এক তন্নিষ্ঠ থিয়েটার যাপনকারী হিসেবে এই আলােচক পাঠককে অসংশয়ে আশ্বস্ত করতে চায় দ্ব্যর্থহীন উচ্চারণে যে, বাংলা থিয়েটারের অস্তিত্ব সঙ্কটে নয়। কিছু সঙ্কট অবশ্যই আছে তবে তা সাময়িক এবং এই সঙ্কট বাংলা নাট্যজগৎ নিশ্চিত ভাবেই কাটিয়ে উঠবে, যেমন সে করেছে বার বার তার সওয়া দুশাে বছরের অস্তিত্বে। এটা আবেগের কথা নয়। এই শিল্পমাধ্যমটির নিজস্ব চরিত্র এবং তার ঐশ্বর্যশালী ইতিহাস এই প্রত্যয়ের জন্ম দিয়েছে।

তাই প্রথমে একটু আমাদের নাট্যজগতের ইতিহাসের দিকে তাকানাে যাক। ইতিহাসই দেখিয়েছে, বাধাবিঘ্নকে অতিক্রম করে থিয়েটার কেমন করে এগিয়ে চলেছে এবং তার সঙ্গে সে নিজেও বিবর্তিত হয়েছে। আমাদের দেশে থিয়েটার এসেছিল বিদেশিদের হাত ধরে এবং তার চলার পথে পদে পদে এসেছে নানান বাধা। ক্রমে বিদেশিদের হাত ছেড়ে আমরা নিজেরাই শুরু করে দিই আমাদের নিজেদের থিয়েটার। ব্যক্তিগত উদ্যোগে শুরু হয়। বেশ কিছু প্রাইভেট থিয়েটার। ততদিনে মধ্যবিত্ত বাঙালি থিয়েটারের প্রেমে পড়ে গিয়েছে। গিরিশচন্দ্র ঘােষ, অর্ধেন্দুশেখর মুস্তাফি এবং নগেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে প্রথম বাণিজ্যিক থিয়েটার এল কলকাতা শহরে দীনবন্ধু মিত্রর সধবার একাদশী নাট্যটি নিয়ে ১৮৬৮ সালে। সেই আদি 1 সময়েও এসেছে নানান সঙ্কট। তবে দর্শকের আদরে ও ভালবাসায় থিয়েটার একটি ক্রমবর্ধমান শিল্পে পরিণত হতে থাকে, আর তার ব্যবসায়িক সম্ভাবনা এই শিল্পে নিয়ে আসে পুঁজির বিনিয়ােগ। স্বভাবতই দেখা দেয় অভিনেতা, ম্যানেজার, হল মালিক প্রভৃতি স্টেকহােল্ডারদের মধ্যে নানান মতান্তর, ফলে ভাঙা-গড়া শুরু হয়ে যায়, যা আজও বাংলা থিয়েটারের অঙ্গ হয়ে থেকে গিয়েছে। এই ভাঙা-গড়া থিয়েটারের সঙ্কট নয়, বরং তার বৈচিত্রকে বৃদ্ধি করেছে।

তবে বাংলা নাট্য প্রথম গত শতকের তিনের দশকে এক বড় ধরনের অস্তিত্বের সঙ্কটে পড়েছিল। বর্তমানের যে সঙ্কট তার সঙ্গে সেই সঙ্কটের চরিত্রগত ভাবে এবং বিস্তৃতিতে মিল না থাকলেও, সঙ্কটকে কেমন করে অতিক্রম করে নিজের জায়গাটিকে মজবুত করতে হয় তার পাঠ পাওয়া যায় সেই ইতিহাস থেকে। সেই সময়কার সঙ্কটের প্রথম কারণটি সম্পূর্ণ রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক। ১৯২৯ সালের কংগ্রেসের সম্পূর্ণ স্বরাজের ডাকে স্বাধীনতা আন্দোলন জোরদার হতে থাকে। স্বাভাবিক ভাবেই এই অস্থির রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে অর্থনীতিও বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। যে-শ্রেণির বাঙালির পৃষ্ঠপােষকতায় বাংলা থিয়েটার চলত, সেই মধ্যবিত্ত তখন নিজের রুজি-রােজগারের চিন্তায় দিশাহারা— তার আর থিয়েটারে গিয়ে মনােরঞ্জিত হওয়ার সময় বা সুযােগ কোনওটাই ছিল না। এর কারণে কলকাতার নাট্যজগতে একটি ভাটার চেহারা দেখা গেল।

– ত্রিশের দশকের শেষাশেষি বিশ্বযুদ্ধের আগমন আরও জটিল করে দেয় সামগ্রিক পরিস্থিতি। কালােবাজারি, দুর্ভিক্ষ এবং বিয়াল্লিশের আন্দোলন, সাম্প্রদায়িক হানাহানি এবং সব শেষে দেশ-ভাগ— এই সব মিলিয়ে মানুষের অর্থনৈতিক এবং সামাজিক জীবনকে অস্থির করে দেয়। তার ছায়া পড়ে সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলেও এবং সস্তা স্থূল মনােরঞ্জনের সামগ্রী নিয়ে কিছু সাংস্কৃতিক হাঙর নেমে পড়েন পয়সা লােটার ধান্দায়। শিল্প বিচার অপেক্ষা ব্যবসায়িক বিচার প্রাধান্য পেত সেই সময়ে, এবং যেহেতু সাধারণ রঙ্গালয়গুলির মূল লক্ষ্য ছিল সাধারণের মনােরঞ্জন, তাই তাদের উপস্থাপনাতে যতটা না ছিল পরিশীলিত সংস্কৃতির ছাপ তার চেয়ে অনেকগুণ বেশি ছিল দর্শককে উত্তেজিত করে তােলার চটুল রসদ। ক্ষণিকের জন্য বাণিজ্যিক মুনাফা হলেও চিন্তার দৈন্য প্রকট হয়ে দেখা দিল নাট্যজগতে। সৃষ্টিশীলতার এই সঙ্কট কিন্তু অন্যান্য যে-কোনও সঙ্কট অপেক্ষা অনেক বড়। একমাত্র শিশিরকুমার ভাদুড়ী ছাড়া কেউই সেই পাঁক থেকে উদ্ধার পেলেন না সেই সময়ে। যুদ্ধের কারণে কলকাতা প্রায় ফাঁকা হয়ে গেল এবং বেশ কিছু সাধারণ নাট্যালয় বন্ধও হয়ে গেল, থিয়েটার দেখা মানুষের অভাবে।

এই সময়েই থিয়েটারের ওপর আর-একটি আক্রমণ এল তারই এক অতি নিকট আত্মীয়র কাছ থেকে। থিয়েটারকে এক অসম যুদ্ধে নামতে হল সিনেমার সঙ্গে। কথা বলা সিনেমা তখন কলকাতার নতুন বিনােদন। ফলে এক বড় সংখ্যার কমিটেড থিয়েটার-দর্শক সিনেমা হলের সামনে লাইন। দিলেন। থিয়েটারের টিকিটের দাম সিনেমার টিকিটের দামের চেয়ে বেশি হওয়ায় থিয়েটারের গড়পড়তা ব্যবসা মার খেতে থাকল। আবারও ব্যাহত হল থিয়েটারের এগিয়ে যাওয়ার গতি। এই সঙ্কট থেকে বাঁচতে থিয়েটার তার স্ট্র্যাটেজি বদলে নিল। অর্থলগ্নিকারী প্রযােজকরা কোনও ঝুঁকি না নিয়ে দর্শককে আকৃষ্ট করতে সেই সব নাটক বেছে নিলেন, যেগুলি দর্শককে তাঁর পছন্দের গল্প বলবে চলতি আটপৌরে ভাষায়। ক্রমে বাঙালির থিয়েটার প্রেম। এবং আশ্চর্য এক অন্তর্নিহিত শক্তির বলে থিয়েটার আবারও তার হারানাে জায়গা ফিরে পেল এবং তার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেতে থাকল। দর্শকও ফিরতে লাগলেন রঙ্গালয়ে। নতুন কোনও জনপ্রিয় নাটক সেই সময়ে বাংলা রঙ্গমঞ্চে দেখা না গেলেও কিছু ভাল ভাল অভিনেতার দেখা পাওয়া গেল। পারফর্মিং শিল্পের কাছে এই সংবাদ নেহাত তুচ্ছ নয়।

তবে এ কথাও ঠিক যে, সেই সময়ে দিনের শেষে বাঙালির বিনােদনের জন্য শুধুমাত্র থিয়েটার, সিনেমা আর ময়দানে ফুটবল ছিল। আজ কিন্তু ছবিটা একেবারেই বদলে গিয়েছে। আজকের এই ‘দুরন্ত ঘূর্ণির জীবনে 7 মানুষের মনােরঞ্জনের জন্য হরেক পসরা সাজিয়ে রেখেছে এই বিনােদন জগৎ। ঘরের মধ্যে ঢুকে পড়া টিভি আজ বেশ কিছু দশক ধরেই সিনেমা। থিয়েটারের কাছে এক বড় ধরনের থ্রেট হিসেবে রয়েছে। মানুষ তাঁর ঘর ছেড়ে বেরিয়ে আর সিনেমা হলে বা থিয়েটারে যেতে চান না। আবার অন্য দিকে মঞ্চের অভিনেতা-অভিনেত্রীরা মঞ্চ ছেড়ে ধারাবাহিকে কাজ করতে শুরু করেন। এক ধরনের সঙ্কটের মুখে পড়তে হয় নাট্যদলগুলিকে। তবে জনগণের মধ্যে নাট্য দর্শন স্পৃহা আবার দেখা গেল বিশেষ করে যখন এই ধারাবাহিকগুলি সেই একই চিত্রনাট্যের হেরফেরে তৈরি হতে লাগল, এবং থিয়েটারে নতুন মুখের অন্তর্ভুক্তি হতে লাগল। দলগুলি পরিস্থিতি সামলে নিল।

Continue reading your story on the app

Continue reading your story in the magazine

MORE STORIES FROM DESHView All

দক্ষতার স্বীকৃতি আসুক, আনুগত্যের নয়

নিরপেক্ষ, সমদৃষ্টি এবং দূরদৃষ্টিসম্পন্ন, শিরদাঁড়াসােজা মানুষজনকে এগিয়ে এসে হাল ধরতে হবে।

1 min read
Desh
April 17, 2022

আর আর আর : রাজামৌলীর ‘নবরামায়ণ :

দর্শকের সামনের রুপােলি পর্দা কোন এক অলীক জাদুতে রূপান্তরিত হয় ব্যাপ্ত ক্যানভ্যাসে, রচিত হতে থাকে শিল্পসুষমাময় এক একটি আশ্চর্য ফ্রেম।

1 min read
Desh
April 17, 2022

মাথা উঁচু রাখাই নিয়ম ।

বিচ্ছিন্নভাবে কেউ কেউ প্রতিবাদ জানালেও সার্বিক নৈঃশব্দ্যই যেন নিয়মে পরিণত হয়েছে। এই নৈঃশব্দ্য একদিকে যেমন বিভিন্ন গণমাধ্যমে সমালােচিত হচ্ছে, অন্যদিকে জনমানসে বাংলার বুদ্ধিজীবীদের নিয়ে অবিশ্বাসের জন্ম দিচ্ছে।

1 min read
Desh
April 17, 2022

স্বপ্নবিলাসীর আত্মকথন

আলােচ্য বইটি কেবল এক বিন্দু-পরিক্রমা নয়, বরং এক লম্বা রেসিং ট্র্যাক, যে-পথে দৌড় শুরু হয়ে গিয়েছে কৈশাের থেকেই।

1 min read
Desh
April 02, 2022

সময় যখন সম্পাদক

এক গড়পড়তা সাহিত্য-শিল্পের নিশ্চিত আরামে কেন আজ আবদ্ধ হয়ে পড়ছে সৃজনশীলতা?

1 min read
Desh
April 02, 2022

মহা-ইন্দ্র মহেন্দ্র স্বামী সুবী রা নন্দ

একদিন মহাপুরুষ মহারাজ ঠাকুরের কথাগুলাে লিখে রাখছেন। ওটা ঠাকুরের নজরে আসায় ঠাকুর তারককে বলেছিলেন– “ওটা তাের কাজ নয়, ওটার জন্য অন্য লােক আছে।” ওই অন্য লােকটিই হচ্ছেন আমাদের পূজনীয় ‘মাস্টারমশায়।

1 min read
Desh
April 02, 2022

ব্রহ্মবাসী বাঙালির সাহিত্য ও প্রগতি পত্রিকা

বাংলা সাহিত্যের ‘ইতিহাস’ নয়, বলা উচিত ‘ইতিহাসগুলি”। মায়ানমার সে ইতিহাসমালায় এক উল্লেখ্য ছাপ রেখে গেছে।

1 min read
Desh
March 17, 2022

তীক্ষ ও গভীর, দুই ভাষ্য

যন্ত্রণার, বঞ্চনার দুই প্রান্তজীবনের কথা। এবং তা থেকে উত্তরণ— অমিতাভ বচ্চন ও আলিয়া ভট্ট অভিনীত দুটি সাম্প্রতিক চলচ্চিত্রের আলােচনা।

1 min read
Desh
March 17, 2022

কে তুমি পড়িছ বসি অ নি বা ণ চট্টো পা ধ্যা য়

বছর কুড়ি আগে আনন্দবাজার পত্রিকা নিজেকে নিয়ে একটি সমীক্ষা করিয়েছিল, এ-কালে যেমনটা দস্তুর। পাঠকদের একাংশের কাছে সেই সমীক্ষার অন্যতম প্রশ্ন ছিল: এই পত্রিকাকে যদি এক জন ব্যক্তি হিসেবে কল্পনা করতে বলা হয়, তিনি কোন ব্যক্তির কথা ভাববেন?

1 min read
Desh
March 17, 2022

বিচ্ছেদাত্মক কাব্য-নাট্যভাবনা

ভারতীয় ভাবনায় ‘ট্র্যাজেডির চেতনা যে কতটা ছিল, সেটা লেখক রসশাস্ত্রের সূক্ষ্মাতিসুক্ষ্ম ভাবনার মাধ্যমে বিস্তারিতভাবে প্রকট করে তুলেছেন।

1 min read
Desh
March 17, 2022
RELATED STORIES

Look Great, Feel Great

Shake off that extra weight

3 mins read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

from the HEART

In my column as your Chief Spiritual Officer, I share a meaningful verse that lifts my spirits and guides me in the right direction. I hope it does the same for you!

1 min read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

Disguise your veggies

Eat Your Vegetables Day will be the day you finally convince your kids (or your spouse) to eat the "yucky" green stuff. Jaclyn London, R.D., host of the food and wellness podcast On the Side, reveals her sneaky strategies.

1 min read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

THE hope squad

We've teamed up with good-news hub Hope Rises to share its most moving and inspiring stories.

7 mins read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

Life lessons

As WD's new Rabbi in Residence, I'll share some ancient and universal Jewish wisdom that I hope will help everyone lead a more beautiful life.

2 mins read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

Sunny day smarts

When temps rise, so does your chance of heart trouble if you're at risk. Suddenly your body has to work harder to maintain its core temp, which can strain the heart and up your risk of heat-related illness. And becoming dehydrated because of excessive sweating or not drinking enough (plus, diuretics are often used as blood pressure meds, making adequate hydration even more challenging) can cause your blood pressure to drop and your heart to beat faster. Here, three biggies for staying heart-healthy in the heat.

1 min read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

I TURNED 19!

Para surfing champion and disability advocate Liv Stone knows how to turn the tide.

1 min read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

Feast of FRIED CHICKEN

Quin Liburd of the blog Butter Be Ready shares her most scrumptious recipes in honor of National Fried Chicken Day.

5 mins read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

15 BUCKET LIST beaches

You'll feel like the luckiest castaway standing on these postcard-perfect shores.

5 mins read
Woman's Day
June - July 2022 / Summer 2022

Velocity Micro Raptor Z55

Scary performance from this overclocked beast

3 mins read
Maximum PC
June 2022