সস্তায় বিদেশ ভ্রমণের টিপস

Saptahik Bartaman|February 29, 2020

সস্তায় বিদেশ ভ্রমণের টিপস
এক সময় বিদেশ ভ্রমণ অনেকের কাছেই ছিল স্বপ্ন।

বিলাস। তবে এখন একটু পরিকল্পনা করে এগলেই হতে পারে স্বপ্ন পূরণ। তার জন্য পকেটের খুব বেশি। রেস্ত খরচ করতে হবে না। বিদেশ ভ্রমণ মানেই আমাদের মাথায় যেটা সবার আগে আসে তা হল খরচের চিন্তা। কারণ বিমানের। টিকিট থেকে হােটেল সাইটসিয়িং সবেতেই লাগবে মােটা । টাকা। এসব খরচের ভয়ে হয়তাে, ঘর থেকে দু’পা ফেলে দেশের বাইরের জগৎটাকে দেখা হচ্ছে না। কিন্তু একটু মাথা খাটিয়ে । চললে খুবই অল্প খরচে সাধ্যের মধ্যে সবটুকু সুখ খুঁজে নিতে পারেন। অনেকেই মনে করেন বিদেশ সফর মানেই লাখ লাখ টাকার ধাক্কা। সবসময় দেশের বাইরে ঘুরতে যাওয়া মানেই কিন্তু মােটা টাকার ধাক্কা নয়। ব্যাঙ্ক ব্যালান্স খুব একটা না খসিয়েও ঘুরে আসতে পারেন অন্য দেশ থেকে। স্বল্প খরচে বিদেশ ভ্রমণের এই প্রতিবেদনে দেওয়া হল তারই হদিস। সেই সব ভ্রমণ পিপাসুদের। জন্য, যারা নিজের স্বল্প খরচের মাঝে বিশ্ব ভ্রমণের অধরা স্বপ্নকে খুঁজে পেতে চান।

১ ) ভ্রমণের পরিকল্পনা শুরু করবেন যখন, তখন কোন সময় বেড়াতে যাচ্ছেন তা ঠিক করা অত্যন্ত জরুরি । অর্থাৎ সব ভ্রমণস্থল বা জায়গাটির একটা পিক সিজন আর একটা অফ সিজন থাকে । চেষ্টা করুন পিক সিজনে সেই জায়গায় যাওয়ার । পিক সিজনে ঘুরতে গেলে টিকিটের দাম অনেক বেশি থাকে । পশ্চিমের দেশগুলিতে ক্রিসমাস ইস্টারের সময় । ঘুরতে গেলে ফতুর হয়ে যাবেন । ইউরােপের যেকোনও দেশের গ্রীষ্মকালে অনেক খরচ বেড়ে যায় । অফ সিজন ইল ঘুরবার জন্য সবচেয়ে ভালাে সময় । ইউরােপে সাধারণত বসন্ত বা শরৎ হল সােল্ডার সিজন । এই সময় একেবারে শীত পড়ে যায় না । রােদ থাকে । আবার ট্যুরিস্ট কম থাকায় সব কিছুর খরচ কমে যায় । নিজের মতাে ঘুরে বেড়াতে পারবেন । পিক সিজনের তুলনায় কত যে সাশ্রয়ী হবে আপনার ভ্রমণ আপনি ভাবতেও পারবেন । খাবারও পাবেন সস্তার । শপিং করতে পারবেন কম খরচে । তাই লিন পিরিয়ড ভ্রমণের পরিকল্পনা করুন । ভাবছেন লিন । পিরিয়ড আবার কী বস্তু? যখন পর্যটকদের চাপ কম থাকে । সেই সময়টি হল লিন পিরিয়ড । যেমন ইউরােপে জুন, জুলাই , আগস্ট, সেপ্টেম্বরের কিছুদিন পর্যটকদের বাড়তি ভিড় থাকে । আপনি যদি অক্টোবর মাসে ভ্রমণের পরিকল্পনা করেন তবে অনেকটাই খরচ কম হবে । যদিও একটু বৃষ্টি বা ঠান্ডা পেতে পারেন কিন্তু সেটা । সহ্যের মধ্যে থাকবে । তাই সাশ্রয় করতে হলে সিজনে নয়, বেছে । নিন ‘ অফ সিজন' । এতে সাধও মিটবে আবার সাধ্যের মধ্যেই থাকবে আপনার বাজেট । খোঁজ নিয়ে সঠিক পন্থায় টিকিট কাটলে অনেকসময় চল্লিশ হাজার টাকার মধ্যে আপনি পেয়ে যেতে পারেন বিমানের টিকিট । সম্ভব হলে আগে থেকেই বিমানের টিকিট কেটে রাখুন । অনেক কমে টিকিট কিনতে পারবেন ।

২ ) ঘুরতে যেতে হলে উইকেন্ড নয়, বরং সপ্তাহের প্রথম । দিনগুলি বেছে নিন । কেন না, উইকেন্ডে সব সময়েই বিমানের টিকিটের দাম বেশি থাকে । যখন ফ্লাইটের টিকিট বুক করবেন, চেষ্টা করবেন মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে বুক করতে । মঙ্গল থেকে বৃহস্পতি টিকিটের দাম সবথেকে কম থাকে । আর একটা কথা মনে রাখবেন, ডিরেক্ট ফ্লাইটের খরচ বেশি

আর একটা কথা মনে রাখবেন, ডিরেক্ট ফ্লাইটের খরচ বেশি পড়ে । বড় গ্যাপ সহকারে কানেকটিং বিমানের টিকিটের দাম তুলনামূলক কম । যদিও এতে অনেক সময় এয়ারপাের্টে বসে থাকতে হয় । এই বাড়তি সময় না হয় এয়ারপাের্ট ঘুরে কাটাবেন । এতে নতুন জায়গা যেমন ঘােরা হবে তেমন পকেটও সাশ্রয় হবে ।

আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের ক্ষেত্রে যত আগে টিকিট কাটবেন তত সস্তা পাবেন । এছাড়াও নজর রাখুন, অনেক সময় । এয়ারলাইন্সগুলােতে বিভিন্ন অফার থাকে । সেগুলাে কাজে লাগাতে পারেন । একটু চোখ কান খােলা রাখলে এই সুযােগটিও পেয়ে যেতে পারেন ।

৩ ) সপ্তাহের কোনদিন, কখন ফ্লাই করছেন সেটাও গুরুত্বপূর্ণ । শুক্রবার রাতে আর সােমবার সকালের ফ্লাইটের টিকিটের দাম বেশি হয় । অফ ওয়ার্ড টাইমিং এর ফ্লাইটগুলাে কম দামি হয় ।

articleRead

You can read up to 3 premium stories before you subscribe to Magzter GOLD

Log in, if you are already a subscriber

GoldLogo

Get unlimited access to thousands of curated premium stories and 5,000+ magazines

READ THE ENTIRE ISSUE

February 29, 2020